মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

মিরুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

এই বিদ্যালয়টি ৮টি রাস্তার মিলন কেন্দ্রে এবং মিরুখালী ইউনিয়নের প্রানকেন্দ্র মিরুখালী বাজারে অবস্থিত।বিদ্যালয়ের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে মঠবাড়িয়া-ভান্ডারিয়া সড়ক।দুটি দ্বিতল ভবন, মসজিদ এবং একটি বিশাল খেলার মাঠ রয়েছে এখানে।দক্ষ শিক্ষক মন্ডলি দ্বারা পাঠদান করা হয়। বিজ্ঞানাগারের জন্য এবং কম্পিউটার ল্যাবের জন্য আলাদা কক্ষ রয়েছে। বিদ্যালয়ের সুনাম দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে সকলের প্রচেষ্টায়।

১৯৩৭ ইং

এই বিদ্যালয়টি ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার যুদ্ধে ব্যাপক অবদান রাখে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ষষ্ঠ শ্রেণি

সপ্তম শ্রেণি

অষ্টম শ্রেণি

নবম শ্রেণি

দশম শ্রেণি

১৪০

১২৭

১১০

১১০

৮৫

২০১২ সালের জে এস সি ৮৭% এবং ২০১২ সালের এস এস সি ৬৪%

পরীক্ষার নাম

২০০৮

২০০৯

২০১০

২০১১

২০১২

জে এস সি

 

 

৬৬ জন

৭০ জন

১০২ জন

এস এস সি

১৮ জন

২৩জন

৪৩ জন

৪৯ জন

৪৯ জন

১। নুরজাহান খলিল ফাউন্ডেশন,

২। ইস্কান্দার ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন।

বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় জনগণ শিক্ষিত হয়েছে। বিদ্যালয়ের নিজস্ব সম্পত্তিতে ষ্টল নির্মান হওয়ায় আয়ের উৎস বেড়েছে এবং সীমানা প্রাচীর হয়েছে। স্বনামধন্য প্রধান শিক্ষক সহ জে এস সি ও এস এস সি পরীক্ষার কেন্দ্র পেয়েছি।

১। বিদ্যালয়টিকে কলেজিয়েট স্কুলে পরিনত করা। ২। ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আলাদা হোষ্টেল ভবন নির্মান ও শিক্ষক আবসিক ভবন নির্মান করা এবং সীমানা প্রাচীর নির্মান করা। ৩। পুকুরে ঘাট বাধানো।

উপজেলা শহর মঠবাড়িয়া থেকে যানযোগে আমাদের বিদ্যালয়ে আসা যাবে।আমুয়া বন্দর থেকে মোটর বা রিকসা যোগে আসা যাবে।ভান্ডারিয়া উপজেলা থেকে মোটরবাইক যোগে সরাসরি বিদ্যালয়ে আসা যাবে।

১। মো: এনায়েত হোসেন খান, যুগ্ম সচিব, খাদ্য অধিদপ্ত, ঢাকা

২। মো: বেলায়েত হোসেন, অবসর প্রাপ্ত অধ্যাপক।

৩। মো: বেলায়েত হোসেন ইঞ্জি: সুপারেন্ট ইঞ্জিনিয়ার, সাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয়।

৪। ড. জাকির হোসেন, এল এল বি, আইনজীবি ও সাংবাদিক।